Our Blog

বাসা বদলের ঝামেলা, আরনা

বাসা বদলের ঝামেলা, আরনা

বাসা বদল করে সম্প্রতি মি. তানভির দম্পতির মাথায় হাত। শিফটিং এজেন্সীর কম খরচে গ্যারান্টি সহ কাজ করার নানা প্ররোচনার ফাদে পরে, সখের আসবাবপত্র ভেঙ্গে একাকার। এই নিয়ে সংসারে অসন্তোষের রেশ ধরে স্ত্রী দিচ্ছে স্বামীর দোষ, স্বামী দিচ্ছে কোম্পানির দোষ। 
আপনিও সেই কি দোষ চাপাচাপির মধ্যেই থাকবেন, নাকি নির্ভরঘোগ্য  মুভার্সকে দায়িত্ব দিয়ে থাকবেন  রিলাক্স মুডে।

তাহলে, সমাধান একটাই, বাসা বদল ডট কম। 
বাসা, অফিস কিংবা ফ্যাক্টরি, শিফটিং সহ রয়েছে প্যাকিং, আনপ্যাকিং, টেকনিশিয়ান ও পরিবহন সূবিধা। আরো রয়েছে বাজেট অনুযায়ী চারটি প্যাকেজ সুবিধা।
শিফটিং সংক্রান্ত সকল সেবা যখন এক ছাদের নিচে, তবে দেরী কেন, বুকিং করুন আজই।

নিরাপদে শিফট করুন আসবাবপত্র । 
বাসার ভাষা বোঝে,  বাসা বদল ডট কম

স্ত্রী দিচ্ছেন স্বামীর দোষ কেন:

শুধু  তাই নয়! মি. তানভীর সাহেবের দাম্পত্য কলহের  কারন হিসেবে জানা গিয়েছে, বাসা বদলের বিষয় নিয়ে। মিসেস তানভির এর শখের সব ফার্ণিচার সব ডেমেজ হয়ে গেছে। একটি একটি করে খুব কষ্ট করে ঘরেরর সব আসবাবপত্র সংগ্রহ করেন। এত যত্নের আসবাবত্র ডেমেজ হলে মন খারাপ লাগারই কথা, সেই সূত্র ধরে স্ত্রীর মন্তব্য হচ্ছে তার স্বামী কেন একটি ভাল কোম্পানী দিয়ে কাজ করাল না।

স্বামীর দিচ্ছেন কোম্পানীর দোষ কেন:

অপরদিকে বাড়ির কর্তা যখন মুভিং এজেন্সীকে কাজ দেন সব কাজ ভালভাবেই করবেন বলে অংঙ্গীকার করেন শিফটিং এজেন্সী। তাই তিনি দোষ দিচ্ছেন শিফটিং কোম্পানীর। আসলে তারা শুধু কথার বুলিই ছেড়েছেন, কাজের কাজ কিছুই করেননি।কথার সাথে কাজের কোন মিল পাওয়া যায়নি। এমনকি যে ক্ষতি হয়েছে তার কিঞ্চত ক্ষতিপূরনও দেয়নি।আরো আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে যে, শিফটিং এজেন্সীর মালিক দোষ দিচ্ছেন লেবারদের দোষ।এই দোষ চাপাচাপির মধ্যেই চলছে।

এহেন অবস্থায়, দোষ চাপাচাপি থেকে মুক্তি পেতে আজই বাসা বদল ডট কম-এ বুকিং করুন আপনার পরবর্তী শিফটিং এর জন্য। আপনি আপনার পরিবার ও আসবাবপত্র থাকবে নিরাপদ। থাকবেন নিশ্চিন্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
Pinterest
Instagram
01746300300

Enter your keyword