Our Blog

বাসাবদল সার্ভিস ইন ঢাকা

বাসাবদল সার্ভিস ইন ঢাকা

কর্মব্যাস্ত প্রতিটি মানুষ ছুটছে তার নিজ গন্তব্যে। ব্যাস্ত রাজধানীতে কাজের প্রয়োজনে মানুষ আসে। বেশির ভাগ মানুষই এখানে বাসা ভাড়া করে বসবাস করে। কিন্তু কিছুটা ছন্দ পতন হয় যখন কোনো না কোনো কারণ বসত বাসা পরিবর্তন করতে হয়। হোক সেটা ভাড়া বাসা অথবা নিজের বাড়ি। এ এক মহা যুদ্ধ। আসবাব পত্র গোছানো, প্যাক করা, এগুলো আবার নুতন বাসায় নেওয়া, ইলেক্ট্রনিক জিনিস গুলো খোলা আবার সেগুলা নুতন বাসায় সেট করা। অনেক পরিশ্রম ও টেনশন এর ব্যাপার। তার সাথে খরচ তো আছেই। মালামাল খোয়া যাওয়া, ডেমেজ হওয়ার ঘটনাও কম নয়। এই সব সমস্যার একটা সহজ সমাধান হতে পারে বাসাবদল। বাসা /অফিস পরিবর্তনের সকল সমস্যার সমাধানে বাসাবদল সবসময় প্রস্তুত। কম খরচে পরিছন্ন ও রুচিশীল সেবা পেতে বাসাবদল শিফটিং এন্ড মুভিং কোম্পানি সবসময় সর্বাগ্রে।  আপনার একটি ফোন কল ই যথেষ্ট। বাসাবদল টিম পৌঁছে যাবে আপনার দরোজায়।

বাসাবদল মুভার্স এর পরিচিতি: বাসা বদল একটি স্বনামধন্য কোম্পানি। এই কোম্পানি প্রায় ২০ বছরের বেশি সময় ধরে বাংলাদেশে বাসা পরিবর্তন, অফিস পরিবর্তন সহ সকল প্রকার স্থানান্তর সেবা প্রদানকরে আসছে। গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী সঠিক সেবা প্রদান, আন্তরিকতা এবং কর্মোদ্যক্ষতা  বাসাবদলকে দেশের অন্যতম সেরা শিফটিং কোম্পানি তে পরিণত করেছে। বাসাবোড আর প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত দক্ষ কর্মীরা দিন-রাত নিরলস পরিশ্রম করে চলেছে সর্বোচ্চ সেবাটি গ্রাহকের দোরগোরায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য। বাসাবোদলের রয়েছে নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থা। রয়েছে প্যাকিং করার সুদক্ষ কর্মী। বাসাবদল সেবার ক্ষেত্রে অত্যন্ত আন্তরিক এবং দায়িত্বশীল।

বাসাবদল এর সেবা সমূহ: বাসাবদল গ্রাহকের সেবার জন্য বদ্ধপরিকর। তাই এই কোম্পানি সেবার পরিসর বাড়িয়ে চলেছে প্রতিনিয়ত। এখন জেনে নেওয়া যাক বাসাবদলের সেবা সমূহ সম্পর্কে,

  • বাসা পরিবর্তন
  • অফিস পরিবর্তন
  • ফার্নিচার স্থানান্তর
  • প্যাকিং এন্ড মুভিং
  • এছাড়াও সব রকম স্থানান্তর সেবা প্রদান করা হয়।
  • শিফটিং সার্ভিসের সাথে অন্তর্ভুক্ত সেবা সমূহ :
  • নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থা: ট্রাক, পিকআপ এবং কভার্ড ভ্যান।
  • মেশিনারীজ লোড এবং আপলোড করার ব্যবস্থা ।
  • প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত দক্ষ শ্রমিক সরবরাহ।
  • ফার্নিচার প্যাকিং,ওপেন ও ফিটিংস।
  • এয়ার কন্ডিশনার ওপেন, ফিটিং ও সার্ভিসিং সেবা।
  • শিফটিং করার আগে মালামালের পরিমাপ দেখে একসাথে একসাথে সকল চার্জ নির্ধারণ করা হয়। আলাদা কোন চার্জ লাগে না।
  • চার্জ নির্ধারিত হয় মালামালের পরিমানের উপর নির্ভর করে।
  • একদিনের মধ্যেই মালামাল শিফট করা হয়।
  • সেবাগ্রহীতা মালামাল প্যাক করে দিলে খরচ কম হয়।
  • শিফটিং গাড়ির সাথে সর্বোচ্চ ১ (এক) জন সেবা গ্রহীতা যাওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সারা বাংলাদেশেই এই কোম্পানী সার্ভিস প্রদান করে থাকে। 

বাসাবদল মুভার্স এর বাসপরিবর্তন সার্ভিস:

বাসা পরিবর্তন করা একটি কষ্ট সাধ্য বিষয়। একই সাথে প্রচুর সময় ও ব্যায় করতে হয় এ কাজে। এই কষ্টের কাজটি সহজ করে দিতে আপনার পাশে আছে বাসাবদল টিম। আমাদের দক্ষ ও প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত কর্মীগণ দীর্ঘ দিন ধরে এ কাজটি করছেন সুনামের সাথে। আপনি বাসা পরিবর্তনের সদ্ধান্ত নেওয়ার  সাথে সাথে আমাদের সাথে ফোন অথবা মেইল এ যোগাযোগ করতে পারেন। আপনার যোগাযোগের প্রেক্ষিতে আমাদের টিম বাসার অবস্থান ও মালামালের ওপর ভিত্তিকরে একটি দিক নির্দেশনা ও কার্য প্রণালী তৈরী করবে। এবং আপনার সম্মতিক্রমে বাসা পরিবর্তনের কাজটি শুরু করা হবে।

বাসা পরিবর্তনে যে বিষয় গুলো আমরা অবশ্য করণীয় মনে করি:

  • গ্রাহকের সাথে কথা বলে সবচেয়ে প্রয়োজনীয় জিনিস গুলোর তালিকা তৈরী করি এবং সেগুলো প্যাকেট করা হয়।
  • তালিকা মিলিয়ে প্রতিটি প্যাকেটের গায়ে প্রতিটি জিনিসের নাম লিখে রাখা হয়, এতে সহজেই গ্রাহ্ক তার জিনিসটি সহজে খুঁজে পাবেন।
  • অতি মূল্যবান জিনিস গুলো আমরা সতর্কতা ও যত্নের সাথে প্যাকেট  করা হয়  এবং সাবধানতার সাথে সেগুলো নুতন বাসায় স্থানান্তর করা হয়।
  • ভঙ্গুর ও কাছের জিনিস গুলা সাবধানে আলাদা ভাবে প্যাকেট করা হয়।
  • আমাদের দক্ষ কর্মরা নিজ নিজ দায়িত্ব অনুযায়ী আলাদা আলাদা জিনিস পত্র গোছানোর কাজটি করে ফলে কোনো রকম এলোমেলো বা জট পাকানোর মতো অবস্থা তৈরী হয় না।

ফ্রি এসেসমেন্টঃ

বাসা পরিবর্তনের ক্ষেত্রে খরচ ও সময় বিষয়টাকে মনোযোগ সহকারে দেখতে হবে। দক্ষ কর্মী বাছাই না করলে খরচ বাড়বে। দক্ষ কর্মীরা ন্যায্য মুলে কোনো ক্ষয় ক্ষতি ছাড়াই বাসা পরিবর্তন করে থাকে। তাই দক্ষ মুভার্স এর ন্যায্য সুবিদার্থে সঠিক মুল্য প্রদান করতে হয়। দক্ষ মুভার্স হিসেবে, আমাদের ক্লায়েন্টদের সেবার বহির্ভুত সুবিধা দিতে হয়, তাদের মাল্লামালের নিরাপত্তা ও ক্ষতি বিহীন সিফটিং সুবিধা দিতে হয়।তার জন্য আমরা ক্লায়েন্টদের বাসায় মালামাল দক্ষতার তার মুল্য নির্নয়ের জন্য এসেসমেন্ট ও নিরিক্ষা করতে হয়। আর আমরা এই এসেসমেন্ট কষ্ট সম্পুর্নই ফ্রিতেই করে থাকি। এর জন্য আমরা কনো অতিরিক্ত খরচ ধরি না।

নিরাপদে বাসা স্থানান্তরে বাসাবদল মুভার্স:

একমাত্র দক্ষ পেশাদার ও অভিজ্ঞ মুভিং কম্পানি দ্বারাই আপনি নিরাপদে ঝামেলাহীনভাবে বাসা বদল সার্ভিসটি পেতে পারেন।। বর্তমান আধুনিক এই সমাজে জীবিকার তাগিদে মানুষ এক স্থান থেকে অন্য স্থানে বাসা বদল করে থাকে, যেমন কেউ চাকরীর কারণে বাসা বদল করে, কেউ জীবন যাত্রার মান উন্নয়নের ফলে আর ভাল বাসায় যাওয়ার জন্যে বাসা চেইঞ্জ করে, কেউ ছেলে মেয়েদের স্কুল-কলেজ পরির্তনের ফলে বাসা পরিবর্তন করে, কেউ চাকরীহিন হয়ে পড়লে বাসা বদল করে, তাছাড়া আরও ভিবিন্ন কারণে মানুষ বাসা পরিবর্তন করে থাকে। বাসা পরিবর্তন করতে হলে বাসার সকল মালামাল স্থানান্তর ও আসবাবপ্ত্র পরিবর্তন করতে হয়।

একটি বাড়িতে বিভিন্ন ধরনের মালামাল থাকে, যেমনঃ উন্নত মানের আসবাবপত্র, গুরুতপূর্ণ ইলেক্টিক আইটেম, নথি, ফাইল, কম্পিউটার, ফ্রিজ, এসি, কাপড় ধুয়ার মেশিন, গিজার ইত্যাদি সহ আর অনেক দামি মালামাল। এসব উন্নত মানের ও গুরুত্বপূর্ণ মালামাল নিরাপদে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে পরিবর্তন করার জন্য প্রয়োজন প্রফেশনাল অভিজ্ঞ মুভিং কম্পানি। বাসা বদল  সারা বাংলাদেশে সফলতার সাথে দীর্ঘদিন ধরে নিরাপদে ঝামেলাহীনভাবে বাসা বদল সার্ভিস প্রধান করে আসছে।

দ্রুত সময়ে বাসাবদল :

শুধুমাত্র রাজধানী ঢাকায় আমাদের রয়েছে সুপার ফাস্ট বাসা বদল সার্ভিস এছাড়াও আমরা সারা বাংলাদেশে বাসা বদল সার্ভিস দিয়ে থাকি। আমাদের সুপার ফাস্ট আসেসমেন্ট টিম কল করার ৩০ মিনিটের ভেতরে আপনার বাসা দেখার জন্যে চলে যাবে। আপনার সাথে যদি আমাদের কন্টাক্ট সম্পূর্ণ হয়। পরবর্তী ১ ঘন্টার ভেতরে কাজের জন্য আপনার বাসায়  আমাদের অভিজ্ঞ বাসা বদল টিম চলে যাবে প্রয়োজনীয় উপকরণ ও গাড়ি নিয়ে। আমরা প্রত্যেকটি বিভাগের জন্য আলাদা আলাদা কর্মী নিয়োগ করে যেমনঃ ফার্নিচার খোলা এবং লাগানোর জন্য একটা গ্রুপ, এসি রিপেয়ার এবং খোলা এবং লাগানোর জন্য একটি গ্রুপ, ইলেক্টিক আইটেমের জন্য অভিজ্ঞ ইলেক্টিশিয়ান। রাজধানী ঢাকায় আমাদের সুপার ফাস্ট বাসা বদল সার্ভিস ৭/২৪ দিয়ে থাকি।

উন্নত মানের প্যাকিং সেবা:

আপনার মালামাল সুরক্ষিত ও নিরাপদ রাখতে সঠিক ভাবে পাকিং করাতা জরুরি। প্যাকিং যেকোন ধরনের ক্ষয়ক্ষতি বা ডেমেজ এর হাত থেকে জিনিসপত্র

রক্ষা করার জন্য খুবই জররী। বাসা পরিবর্তন করার সাথে সাথে গুরুত্বপূর্ণ কিছু মালামাল এর জন্য প্যাকিং প্রয়োজন হয়, যেমনঃ গুরুত্বপূর্ণ অলংকার, নথি, দলিল, ফাইল, আসবাবপ্ত্র, কাপড়, ইলেক্টিক আইটেম, টিভি, ফ্রিজ, এসি ইত্যাদি । প্যাকিং খুব একটা সহজ কাজ নয়, পণ্যের বা মালামাল এর সাইজ, মান ভেদে প্যাকিং বিভিন্ন ধরনের হয় । বিভিন্ন ধরনের উপকরণ দিয়ে প্যাকিং করা হয়, যেমনঃ সাইজ ও আকার ভেদে কার্টুন বক্স, মালামালের গুনগত মান ভেদে বাবল পেপার, নিউজ পেপার, ফোম পেপার, করিগেটেট রোল পেপার, টেপ, সুতলি ইত্যাদি। ঢাকাতে অনেক মুভিং কম্পাকি আছে যারা প্যাকিং সেবা দিয়ে থাকে, বাসা বদল এমনই একটি সংস্থা যারা সবচেয়ে আধুনিক প্যাকিং ম্যাটিরিয়েলস ব্যবহার করে প্যাকিং সেবা দিয়ে থাকে ।

আপনি যদি চান নিজে নিজেই প্যাকিং করবেন, তাহলে খুব সাবধানে করতে হবে। প্রথমে আপনাকে প্রয়োজনীয় প্যাকিং উপকরণ সংগ্রহ করতে হবে। এক জায়গায় সকল প্যাকিং উপকরণ নাও পেতে পারেন, তাই বিভিন্ন দোকান থেকে সংগ্রহ করতে হবে। তারপর যতটা সম্ভম নিরাপদে প্যাকিং করতে হবে। আমার মতে কোন অভিজ্ঞ সংস্থাকে দিয়ে প্যাকিং করানোই ভাল কারণ এতে কোন রিস্ক থাকে না।

মুভার্স কোম্পানি নির্বাচন  এবং কেন বাসবদলকে গ্রহণ করবেন:

বাসা পরিবর্তনের জন্য যদি আপনি মুভিং কোম্পানি নিতে চান সে ক্ষেত্রে সঠিক  কোম্পানি নির্ধারণ করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ । বাংলাদেশের ঢাকাসহ বড় বড় শহরে ছোট বড় অনেক কোম্পানি বাসা-বদল সার্ভিস দিয়ে থাকে। কিন্তু দক্ষ ও প্রফেশনাল মুভিং কোম্পানির খুবই অভাব। অদক্ষ মুভিং কোম্পানি দিয়ে বাসা পরিবর্তন করালে অনেক ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে, অনেক মালামাল ডেমেজ হতে পারে, অনেক মালামাল ভেঙে যেতে পারে। তাই দক্ষ ও প্রফেশনাল মুভিং কোম্পানির দ্বারা বাসা পরিবর্তন করাই উওম। মুভিং কোম্পানি ঠিক করার আগে আপনাকে অবশ্যই যাচাই বাচাই করে নিতে হবে। কোম্পানির অভিজ্ঞতা, কর্মীর দক্ষতা এবং এ কোম্পানির সেবা গ্রহীতাদের মতামত ও আপনাকে গুরুত্বের সাথে দেখে হবে। এ দিক দিয়ে বাসাবদল মুভার্স হতে পারে আপনার প্রথম পছন্দ।

  • আপনার মূল্যবান মালামাল খুলে প্যাকিং করে, ট্রান্সফার করি এবং সেগুলোকে আবার লাগানো দায়িত্ব পর্যন্ত আমাদের। আপনাকে একটি মালামালে ও টাচ্ করতে হবে না।
  • নিজস্ব পবিবহন এবং নিজস্ব লেবার।
  • অভিজ্ঞ টেকনিশিয়ানস্ এবং ইলেকট্রেশিয়ানস্
  • বিশস্ত এবং নিরাপদ স্থানান্তরে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ
  • আন্তর্জাতিক মানের প্যাকিং সুবিধা।

পরিবহনের চার্জ:

ঢাকার মধ্যে বাসা বদলএর ক্ষেত্রে চার্জ নির্ধারিত হয় মালামালের পরিমান ও ধরনের উপর নির্ভর করে। অর্থাৎ মালামাল যদি ১ টন পিকআপ ভ্যানেই পরিবহন করা যায় তাহলে গ্রাহককে ৫,৫০০ টাকা থেকে ৬,৫০০ টাকা প্রদান করতে হবে। বাড়তি কোনো সেবার জন্য আলোচনা সাপেক্ষে মূল্য নির্ধারণ করা হয়।

ক্ষতিপূরণ:

পরিবহনের সময় মালামাল ক্ষতিগ্রস্ত হলে প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সাধারণত  ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয় না। তবে ক্ষতির পরিমান বেশী হলে কোম্পানীর পক্ষ থেকে গ্রাহককে অতিদ্রুত ক্ষতিপূরণ প্রদান করা হয়। ক্ষতিপূরণ নির্ধারিত হয় কোম্পানী ও গ্রাহকের মধ্যে আলোচনা সাপেকক্ষে।বাসা পরিবর্তন খুবই কঠিন কাজ। এর জন্য অতিরিক্ত মনোযোগ , গুরুত্ব ও সময় ব্যয় করতে হয়।  বাসার আসবাব পত্র সমুহ আনলোড ও ঠিকমত স্থাপন করতে দক্ষতা  ও পুর্বুভিজ্ঞতা প্রয়োজন। এ ক্ষেত্রে  সততা, কর্ম দক্ষতা, সঠিক সেবা প্রদানে বাসাবদল মুভার্স হতে পারে আপনার আস্থার জায়গা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

YouTube
Pinterest
Instagram

Enter your keyword